ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪ 

 ১২৫৭ কোটি টাকা ব্যয়ে আমদানি হচ্ছে তিন কার্গো

 অর্থনৈতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১১:৩৫, ২ এপ্রিল ২০২৪

আপডেট: ১৬:০৫, ২ এপ্রিল ২০২৪

শেয়ার

 ১২৫৭ কোটি টাকা ব্যয়ে আমদানি হচ্ছে তিন কার্গো

বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয় আন্তর্জাতিক পৃথক তিনটি কোটেশনের মাধ্যমে তিন কার্গো এলএনজি আমদানি করছে। তিন কার্গো এলএনজি আমদানি করতে মোট ব্যয় হবে ১,২৫৬ কোটি ৯২ লাখ ৮৪ হাজার ৭২৮ টাকা। সিঙ্গাপুরভিত্তিক তিনটি প্রতিষ্ঠান এই তিন কার্গো এলএনজি সরবরাহ করবে।

জানা যায়, স্পট মার্কেট থেকে এলএনজি ক্রয়ের জন্য যথাযথ প্রক্রিয়া অনুসরণ করে মাস্টার সেল অ্যান্ড পারচেজ অ্যাগ্রিমেন্ট (এমএসপিএ) প্রস্তুত করে প্রয়োজনীয় অনুমোদন নেওয়া হয়। এরপর পেট্রোবাংলা এমএসপিএ অনুস্বাক্ষরকারী ২৩ প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে চূড়ান্ত এমএসপিএ স্বাক্ষর করে।

দেশের বিদ্যমান এবং ক্রমবর্ধমান গ্যাসের চাহিদা মেটানোর লক্ষ্যে কক্সবাজারের মহেশখালীতে দৈনিক ৫০০ এমএমসিএফ এবং ৬০০ এমএমসিএফ ক্ষমতাসম্পন্ন দুটি ভাসমান এলএনজি টার্মিনাল স্থাপন করা হয়েছে। টার্মিনাল দুটির মাধ্যমে জি-টু-জি ভিত্তিতে পেট্রোবাংলার সঙ্গে স্বাক্ষরিত চুক্তির আওতায় রাস লাফান লিকুইডিফাইড ন্যাচারাল গ্যাস কোম্পানি লিমিটেড (কাতারগ্যাস) থেকে ১৫ বছর মেয়াদে বর্তমানে ২.৫ এমটিপিএ এলএনজি এবং ওমান ট্রেডিং ইন্টান্যাশনাল (বর্তমান নাম ওকিউটি) থেকে ১০ বছর মেয়াদে বর্তমানে ১.০ এমটিপিএ এলএনজি মোট ৩.৫ এমটিপিএ এলএনজি আমদানি করা হচ্ছে। এছাড়া দেশে বিদ্যুৎ, শিল্প ও সার কারখানায় নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহের জন্য দীর্ঘমেয়াদি ভিত্তিতে এলএনজি আমদানির পাশাপাশি স্পট মার্কেট থেকেও এলএনজি ক্রয় করা হচ্ছে। সে প্রেক্ষিতে স্পট মার্কেট থেকে ২০২৪ সালের জানুয়ারি থেকে জুন সময়ের জন্য অনুমোদিত ১৩ কার্গো এলএনজির অতিরিক্ত ১০ কার্গো এলএনজি ক্রয়ের জন্য গত ২২ মার্চ তারিখে বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদ মন্ত্রণালয়ের মন্ত্রী (প্রধানমন্ত্রী) নীতিগত অনুমোদন দিয়েছেন।

সূত্র জানায়, বিদ্যুৎ, ক্যাপটিভ বিদ্যুৎ, শিল্প ও বাণিজ্যিক খাতে নিরবচ্ছিন্ন গ্যাস সরবরাহের জন্য ২০২৪ সালের মে মাসে স্পট মার্কেট থেকে ৫ কার্গো এলএনজি ক্রয় করা প্রয়োজন। 

উল্লেখ্য, বিগত কয়েক মাস ধরে স্পট মার্কেটে এলএনজির মূল্যের তারতম্য লক্ষ্য করা যাচ্ছে। ফলে সার্বিক বিবেচনায় গত ২৫ মার্চ তারিখে আরপিজিসিএল থেকে এমএসপিএ সরবরাহের দরপ্রস্তাব আহ্বান করে ই-মেইলে চিঠি পাঠানো হয়।  

সূত্র জানায়, ২০২৪ সালের ১৩তম কার্গো এলএনজি’র জন্য কোটেশন আহ্বান করা হলে ২টি প্রতিষ্ঠান এতে সাড়া দেয়। এরমধ্যে সিঙ্গাপুরভিত্তিক ভিটল এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেড প্রতি ইউনিটের দাম ৯.৬৮০০ ইউএস ডলার এবং সুইজারল্যান্ডভিত্তিক টোটালএনার্জিস গ্যাস অ্যান্ড পাওয়ার প্রতি ইউনিটের দাম ৯.৬৯০০ ইউএস ডলার উল্লেখ করে। দরপ্রস্তাবে ভিটল এশিয়া প্রাইভেট লিমিটেড সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে এক কার্গো এলএনজি সরবরাহ করবে। এক কার্গো সমান ৩৩,৬০,০০০ এমএমবিটিইউ গ্যাস আমদানিতে মোট ব্যয় হবে ৪১৮ কোটি ৫৯ লাখ ৪১ হাজার ৭৬০ টাকা।

এক কার্গো এলএনজির জন্য দরপ্রস্তাবে ৩টি প্রতিষ্ঠান অংশ নেয়। এরমধ্যে সিঙ্গাপুরভিত্তিক গানভর সিঙ্গাপুর প্রাইভেট লিমিটেড প্রতি ইউনিটের দাম ৯.৪৯৬৫ ইউএস ডলার, ভিটল এশিয়া সিঙ্গাপুর ৯.৫৮০০ ইউএস ডলার এবং যুক্তরাষ্ট্রের এক্সেলারেট এনার্জি এলপি ১০.০৮৫৩ ইউএস ডলার উল্লেখ করে। দরপ্রস্তাবে সর্বনিম্ন দরদাতা হিসেবে গানভর সিঙ্গাপুর প্রাইভেট লিমিটেড এই এক কার্গো এলএনজি সরবরাহ করবে। এতে মোট ব্যয় হবে ৪১০ কোটি ৬৫ লাখ ৯০ হাজার ৪৮৮ টাকা।

দ্য নিউজ/ এম আর এন

live pharmacy
umchltd