ঢাকা রোববার, ০৩ মার্চ ২০২৪ 

পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হলেন শেহবাজ

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৫:২১, ৩ মার্চ ২০২৪

আপডেট: ১৬:০১, ৩ মার্চ ২০২৪

শেয়ার

পাকিস্তানের নতুন প্রধানমন্ত্রী হলেন শেহবাজ

পার্লামেন্টের ভোটে সুন্নি ইত্তেহাদ কাউন্সিলের ওমর আইয়ুবকে বিশাল ব্যবধানে হারিয়ে পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রী হলেন পিএমএল-এন পার্টির শেহবাজ শরীফ। তিনি পাকিস্তানের ২৪তম প্রধানমন্ত্রী। রোববার পার্লামেন্টে ২০১ ভোট পান তিনি। অপরদিকে ওমর আইয়ুব পান ৯২ ভোট। জাতীয় পরিষদের স্পিকার সরদার আয়াজ সাদিক ভোটের ফলাফল ঘোষণা করেছেন।

 

প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হয়ে ভাই নওয়াজ শরীফের প্রতি কৃতজ্ঞতা জানান শেহবাজ। এরপর তিনি ধন্যবাদ দেন তাকে ভোট দেয়া রাজনৈতিক দলগুলোকে। ভোটে তাকে সমর্থন দেয়া দলগুলো হচ্ছে- পাকিস্তান পিপলস পার্টি (পিপিপি), মুত্তাহিদা কওমি মুভমেন্ট-পাকিস্তান (এমকিউএম-পি), পাকিস্তান মুসলিম লীগ-কায়েদ (পিএমএল-কিউ), বেলুচিস্তান আওয়ামী পার্টি (বিএপি), পাকিস্তান মুসলিম লীগ-জিয়া (পিএমএল-জেড), ইস্তেহাকাম-ই -পাকিস্তান পার্টি (আইপিপি) এবং ন্যাশনাল পার্টি (এনপি)।

 

এর আগে গত ৮ই ফেব্রুয়ারি পাকিস্তানে সাধারণ নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়। তবে ইমরান খানের দল  পিটিআই-এর প্রার্থীরা তাদের দলীয় প্রতীকে নির্বাচন করতে পারেননি। তারা স্বতন্ত্র হিসেবে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেন। দেশটির ২৬৬টি আসনে মধ্যে কারাবন্দি ইমরান খানের দল সমর্থিত স্বতন্ত্র প্রার্থীরা ৯৩টিতে জয়লাভ করেন। অন্যদিকে নওয়াজ শরিফের পিএমএল-এন ৭৩টি আসন পায়। বিলওয়াল ভুট্টো জারদারির পিপিপি পায় ৫৪টি আসন। জমিয়তে উলেমা-ই-ইসলাম (এফ) পেয়েছে ৩টি আসন। এছাড়া অন্যান্য দলগুলো পেয়েছে ৩৩টি আসন।

 

তবে কোনো দল নিরঙ্কুশ সংখ্যাগরিষ্ঠতা না পাওয়ায় সরকার গঠন নিয়া নানা নাটকীয়তা তৈরি হয়। এক সময়ের দুই প্রতিদ্বন্দ্বী পিএমএল-এন ও পিটিআই সরকার গড়তে ফের একবার হাত মেলায়। দুই দল মিলে ক্ষমতা ভাগাভাগি করে সরকার গড়ে। এর ফলে জোট সরকারের প্রধানমন্ত্রী হিসেবে নির্বাচিত হলে শেহবাজ শরীফ।

দ্য নিউজ/ এফ এইচ এস

live pharmacy
umchltd

সম্পর্কিত বিষয়: