ঢাকা মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪ 

বিদেশে সম্পদের কথা কবুল করলেন সাবেক ভূমিমন্ত্রী

দ্য নিউজ ডেস্ক

প্রকাশিত: ১৮:৩৭, ২ মার্চ ২০২৪

আপডেট: ১৮:৪৪, ২ মার্চ ২০২৪

শেয়ার

বিদেশে সম্পদের কথা কবুল করলেন সাবেক ভূমিমন্ত্রী

সাবেক ভূমিমন্ত্রী সাইফুজ্জামান চৌধুরী জাভেদ লন্ডনে ব্যবসা ও সম্পদ থাকার কথা স্বীকার করেছেন। তবে এসব সম্পদ করার ক্ষেত্রে বাংলাদেশ থেকে কোনো টাকা নেননি বলে তার দাবি। সম্পদ বৃদ্ধির কারণ হিসেবে চট্টগ্রাম-১৩ (আনোয়ারা-কর্ণফুলী) আসনের এই সংসদ সদস্য বলেন, করোনা মহামারি তার জন্য সুযোগ হয়ে আসে। সে সময় লন্ডনে বাড়ির দাম পড়ে যায়। ব্যাংকঋণের সুদ কমে যায়। ওই সময় তিনি ঝুঁকি নিয়ে লাভবান হয়েছেন। তিনি শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে আয়োজিত এক সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন।

সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, তার বাবা ১৯৬৭ সাল থেকে লন্ডনে ব্যবসা করেছেন। তিনি নিজে যুক্তরাষ্ট্রে পড়াশোনা করে ১৯৯১ সাল থেকে সেখানে ব্যবসা করেছেন। এরপর তিনি লন্ডনে ব্যবসা সম্প্রসারণ করেছেন।

নির্বাচনী হলফনামায় বিদেশে সম্পদ থাকার কথা গোপন করার বিষয়ে আওয়ামী লীগের এই সংসদ সদস্য বলেন, হলফনামা পুরোপুরি বাংলাদেশের আয়কর রিটার্নের ওপর ভিত্তি করে দেওয়া হয়। এতে বিদেশে সম্পদের তথ্য দেওয়ার আলাদা কোনো ছক নেই। বাড়তি তথ্য কেন দিতে যাবেন? তিনি বলেন, বিদেশে তার আলাদা আয়কর নথি আছে। আর বিদেশে যে সম্পদ আছে, এর পেছনে ব্যাংকঋণ আছে।

মন্ত্রী থাকা অবস্থায় তার মন্ত্রণালয়ে এক টাকারও দুর্নীতি হয়নি দাবি করেন সাবেক এই মন্ত্রী বলেন, প্রয়োজনে উচ্চপর্যায়ের তদন্ত দল গঠন করা হোক। তদন্ত কমিটি কোনো দুর্নীতি প্রমাণ করতে পারলে সংসদ সদস্য পদ থেকে পদত্যাগ করার ঘোষণা দেন তিনি।

নিজেকে আগে ব্যবসায়ী পরে রাজনীতিক বলে উল্লেখ করেন সাইফুজ্জামান চৌধুরী বলেন, নিজের নামে সম্পদ করেছেন জেনে-বুঝে। কারণ, তার সন্তানদের তখন মালিক হওয়ার মতো বয়স ছিল না। তার বিদেশের সম্পদের পরম্পরা (ট্রেইল আছে) আছে। সুতরাং, নিজের নামে সম্পদ করেছেন জেনেই।

live pharmacy
umchltd

সম্পর্কিত বিষয়: