ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪ 

ঘড়ি দেখে লাশ শনাক্ত !

অর্পিতা জাহান

প্রকাশিত: ১২:২০, ১ মার্চ ২০২৪

আপডেট: ১২:২১, ১ মার্চ ২০২৪

শেয়ার

ঘড়ি দেখে লাশ শনাক্ত !

মুখ ঝলছে গেছে। চেহারা দেখে চেনারই উপায় নেই। হাতের ঘড়ি এবং সামনের দাঁত দেখে বন্ধুর লাশ শনাক্ত করলেন আনিসুল ইসলাম।

তিনি বলেন, মিনহাজ যে ঘড়িটি পড়তো সেটি দেখে আমি চিনতে পেরেছি । আরেকটি বিষয় হচ্ছে ওর সামনের দাঁত দুটি তুলনামূলক বড় ছিলো। যা দেখে কনফার্ম হয়েছি -এটি মিনাহজেরই লাশ।

শুক্রবার বেলা পৌনে ১২ টার দিকে তিনি  লাশ শনাক্ত করেন। 

রাজধানীর বেইলি রোডে গ্রিন কজি কটেজ ভবনে আগুনে পুড়ে নিহত ৪৫ জনের একজন মিনহাজ উদ্দিন(২৫)।

তিনি কুমিল্লা বটতলা গ্রামের ওয়ালিউল্লাহ খানের ছেলে। তিন ভাই বোনের মধ্যে মিনহাজ ছোট।

মিনহাজ রাজধানীর কারওয়ান বাজারে একবছর ধরে একটি আইটি ফার্মে চাকুরি করতেন।

উল্লেখ, বৃহস্পতিবার রাত প্রায় ৯ টা ৪০ মিনিটে ওই ভবনে আগুন লাগে। আগুন নিয়ন্ত্রণে কাজ করে ফায়ার সার্ভিসের ১২ টি ইউনিট।

ফায়ার সার্ভিস জানিয়েছে, রাত ৯ টা ৫১ মিনিটের দিকে আগুন লাগার খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে গিয়ে কাজ শুরু করে ৮টি ইউনিট। পরে আরও ৪ টি ইউনিট যুক্ত হয়। 

সাততলার ওই ভবনের দ্বিতীয় তলায় ‘কাচ্চি ভাই’ নামের রেস্ট্রুরেন্ট রয়েছে। তৃতীয় তলায় একটি পোশাকের দোকান ছাড়া বাকি সব তলাতেই খাবারের দোকান। প্রতিদিন সন্ধ্যার পর থেকে খাবারের দোকানগুলোতে ক্রেতাদের ভিড় হয়। অনেকেই পরিবার নিয়ে সেখানে খেতে যান।

তিনতলায় কাপড়ের দোকান ছাড়া বাকি সব ফ্লোরে রেস্টুরেন্ট থাকায় সব ফ্লোরেই ছিলো গ্যাস সিলিন্ডার। ধারণা করা হচ্ছে সে কারণেই দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ে।

বেইলি রোডের ওই ভবনে আগুনের ঘটনায় ৫ সদস্যের তদন্ত টিম গঠন করেছে ফায়ার সার্ভিস।

দ্য নিউজ/অজা/আসা

live pharmacy
umchltd