ঢাকা বৃহস্পতিবার, ২৫ এপ্রিল ২০২৪ 

দাখিলের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ২১ শিক্ষককে অব্যাহতি ও আটক ১

বাগেরহাট সংবাদদাতা

প্রকাশিত: ২২:০৭, ৩ মার্চ ২০২৪

শেয়ার

দাখিলের প্রশ্ন ফাঁসের অভিযোগে ২১ শিক্ষককে অব্যাহতি ও আটক ১

বাগেরহাটে দাখিল পরীক্ষার প্রশ্নপত্র ফাঁসের অভিযোগে একটি কেন্দ্রে দায়িত্বরত ২১ শিক্ষককে এক বছরের জন্য অব্যাহতি এবং আল আমিন খান নামের এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। একই সাথে আল আমিনসহ তিনজনের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। 

রবিবার (০৩ মার্চ) মোরেলগঞ্জের পোলেরহাট আজহারিয়া দাখিল মাদরাসা কেন্দ্রে এই ঘটনা ঘটে। সকাল ১০টা থেকে দুপুর একটা পর্যন্ত চলা ইংরেজী পরীক্ষায় প্রশ্ন ফাঁসের বিষয়টি হাতে-নাতে ধরেন মোরেলগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম তারেক সুলতান। 

গ্রেপ্তারকৃত আল আমিন খান মোরেলগঞ্জ উপজেলার সোনাখালি গ্রামের মোঃ মাসুম খানের ছেলে। স্মার্ট ফোনে প্রশ্নপত্র সংগ্রহ করে, উত্তর সরবরাহ করছিলেন আল আমিন। এই মামলার অন্য দুই আসামি হচ্ছেন- পঞ্চকরণ দাখিল মাদরাসার শিক্ষক নজরুল ইসলাম গাজী এবং খারুইখালি দাখিল মাদরাসার শিক্ষক এমদাদ হোসেন। প্রশ্নফাঁসের সাথে জড়িত থাকায় এদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

নির্বাহী কর্মকর্তা এসএম তারেক সুলতান বলেন, এটি একটি চক্র। এই চক্রের সাথে অনেকেই জড়িত। আমরা যুবক আল আমিনের ফোনে প্রশ্নপত্র পেয়েছি। সে শিক্ষার্থীদের কাছে উত্তর সরবরাহ করছিলেন। প্রশ্নফাঁসের সাথে জড়িত থাকার অপরাধে আল আমিন ও দুই শিক্ষকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এছাড়া, ওই কেন্দ্রে দায়িত্বরত ২১ শিক্ষককে এক বছরের জন্য অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। নতুন করে নিয়োগ দেওয়া কক্ষ পরিদর্শকরা পরবর্তী পরীক্ষাগুলোতে দায়িত্ব পালন করবেন।

এদিন, পোলেরহাট আজহারিয়া দাখিল মাদরাসা কেন্দ্রে চলমান ইংরেজী পরীক্ষায় ৪৭৭ জন পরীক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেছেন।
 

দ্য নিউজ/ এনজি

live pharmacy
umchltd

সম্পর্কিত বিষয়: